চিন্তা এবং আবেগ মোকাবিলা

কেন আমাদের চিন্তা ও আবেগের সাথে মানিয়ে নেওয়া প্রয়োজন?

শারীরিক স্বাস্থ্যের মতোই আমরা যদি সুষম খাদ্য না খাই, যদি যথেষ্ট বিশ্রাম না নি বা নিয়মিত শরীরচর্চা না করি তাহলে হয়তো আমরা ঘনঘন অসুস্থ হয়ে পড়ব।

আমরা যদি বুঝতে না পারি কখন আমরা চাপের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি এবং সঠিক চিন্তা ও আবেগকে সনাক্ত না করতে পারি, তাহলে আমরা নিজেদের অসুস্থ থাকতে অনুমতি দিচ্ছি, যা আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে 

লোকডাউনের সময় মানসিক চাপ দূরে রাখার কিছু পদ্ধতি

এরম সংকটের সময় দুঃখ পাওয়া, বুঝতে না পারা, ভয়ে থাকা বা রাগ হওয়া তা স্বাভাবিক

বন্ধু ও পরিবারের সাথে ফোন এ যোগাযোগ রাখুন

সঠিক খবর ও তথ্যের জন্য একজন বিশ্বাসযোগ্য উৎস খুঁজে বার করুন

অবসর সময়ে নানা কার্যকলাপে ব্যস্ত থাকুন

https://sgmigrantcoalition.wixsite.com/home

এই ওয়েবসাইট গিয়ে নিজের মন কে ব্যস্ত রাখার কিছু উপায় খুঁজে নিন

নিজের অতীত টা নিয়ে ভাবুন।কোনো খারাপ সময়ে কিভাবে বেরিয়ে এসেছিলেন এবং সেই একই দক্ষতা কি এই সংকটের সময় কাজে লাগানো যায়?

 

যা ঘটছে সে ব্যাপারে আমি অত্যন্ত উদ্বিগ্ন।কি করতে পারি?

আবেগ ও চিন্তা আমাদের সহজেই আবিষ্ট করে।যখন উদ্বিগ্ন থাকি তখন আমরা আমাদের হৃদস্পন্দন ধীরে করে দিতে পারি।যত দ্রুত হৃদস্পন্দন হবে তত বেশি উদ্বিগ্ন হবো আমরা।

শ্বাস ব্যায়াম

শ্বাস আপনার হৃদস্পন্দন কমাবে ও তাতে উদ্বেগ কমবে

  1. একটা আরামদায়ক সুন্দর জায়গায় বসুন (বিছানায় বা মাটিতে)
  2. সোজা হয়ে বসে হাত দুটি কোলের ওপর রাখুন
  3. ৪ গোনা অব্দি ধীরে ধীরে শ্বাস নিন
  4. আবার ৪ গোনা অব্দি ধীরে ধীরে শ্বাস ছাড়ুন
  5. ৩ ও ৪ এর পুনরাবৃত্তি করুন