আপনার অধিকার জানুন

স্বাস্থ্য পরিষেবা সাধারণত সেই সব অভিবাসী শ্রমিকদের সেবা দেয় যাদের ওয়ার্ক পারমিট বা বিশেষ পাস থাকে। আমরা আশা করি নীচের তথ্যগুলি আপনাকে একজন বিশেষ পাস ধারক বা ওয়ার্ক পারমিট ধারক বা নিয়োগকর্তা হিসেবে আপনার অধিকারগুলি বুঝে নিতে সহায়তা করবে।

বিশেষ পাস ধারক

    • একটি বিশেস পাস (SP) যা একজন বিদেশিকে সিঙ্গাপুরে থাকার অনুমতি দেয়,

    • এটি একটি বিশেষ উদ্দেশ্যে যেমন তদন্তে সহায়তা করা, কাজের ক্ষতির দাবি বা বেতন আদায়ের দাবি হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

    • জনশক্তি মন্ত্রক/মিনিস্ট্রি অফ ম্যানপাওয়ার (MOM) এবং অভিবাসন ও চেকপয়েন্ট কর্তৃপক্ষই একমাত্র এই সকল বিশেষ পাস অনুমোদন করে

    • স্পেশাল পাস জারি করা বিদেশীদের সিঙ্গাপুরে কাজ করার অনুমতি নেই।

    • যদি কোন বিদেশী সিঙ্গাপুরে কাজ করতে চান, তবে তাকে  MOM এর কাছে ওয়ার্ক পাসের (কাজের পাসের) জন্য আবেদন করতে হবে।

    • বৈধ ওয়ার্ক পাস ব্যাতিরেকে যদি কোন বিশেষ পাস ধারক কাজ করে থাকেন তা অপরাধমূলক এবং সংশ্লিষ্ট আইন অনুযায়ী তার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    • সমস্ত বিশেষ কার্ডের বৈধতার তারিখ নির্দিষ্ট।

    • আপনাকে অতি অবশ্যই আপনার বিশেষ পাসটিকে  MOM (হল সি) বা ICA তে পুনর্নবীকরণ করাতে হবে

    • যদি আপনি আপনার বিশেষ কার্ডটি হারিয়ে ফেলেন, তবে আপনাকে পুলিশে খবর দিতে হবে এবং কার্ড প্রতিস্থাপনের জন্য MOM /ICA তে আবেদন করতে হবে

ওয়ার্ক পাস অনুমতিধারী

এখানে আমরা জনশক্তি মন্ত্রক (MOM) এর ওয়েবসাইট থেকে কিছু মৌলিক তথ্য একত্রিত করেছি যাতে ওয়ার্ক পাস অনুমতিধারীদের বুঝতে সুবিধা হয় সিঙ্গাপুরে কাজ করতে হলে তারা কি কি করতে পারেন আর কি কি পারেন না:

  • আপনার কাজ করার জন্য আপনার কাছে একটি বৈধ ওয়ার্ক পাস থাকা বাধ্যতামূলক এবং আরও বেশি টাকা উপার্জন করার জন্য দ্বিতীয় কোন কাজে যোগদান করতে পারবেন না। এর প্রতিফলন খুব মারাত্মক এবং এর জন্য আপনার জরিমানা হতে পারে অথবা দু বছরের জেল/কারাবাস ও হতে পারে।
  • আপনার কর্মসংস্থান সংস্থাটি বৈধ কিনা যাচাই করে নিন। আপনি এখানে খুঁজে দেখতে পারেন:

 

 

  • যদি আপনি সিঙ্গাপুরের কোন কর্মসংস্থান সংস্থার সংঙ্গ চুক্তিবদ্ধ থাকেন, তবে আপনাকে প্রতি বছর আপনার চুক্তি বা ওয়ার্ক পাস অনুযায়ী এক মাসের বেতনের বেশি দিতে হবে না।
  • আপনার নিয়োগকর্তা যদি আপনার কাছে টাকা দাবি করেন এগুলি আদায় করার জন্য, তবে তা অনৈতিক: আপনার চাকরি সুরক্ষিত রাখা, ওয়ার্ক পাস নবীকরণ, স্বাস্থ্য/ চিকিৎসা বিমা, কর দেওয়া, চিকিৎসা ফি, বাধ্যতামূলক প্রশিক্ষণ, স্বদেশে পাঠানোর খরচ, নিরাপত্তা চুক্তি।
  • আপনার নিয়োগকর্তা আপনার বেতন তখনি কাটতে পারেন যদি: আপনি কাজে অনুপস্থিত থাকেন, আপনার নিয়োগকর্তা দ্বারা খাদ্য সরবরাহের খরচ, থাকার খরচ, সুবিধা এবং পরিষেবার খরচ, অগ্রিম ও ঋণ পুনরুদ্ধার অথবা অতিরিক্ত বেতনের সমন্বয়/ সামন্জস্য। তবে যে সকল বিদেশী কর্মী এই সার্কিট ব্রেকার এর জন্য কাজ করতে পারছেন না, নিয়োগকর্তা তাদের রক্ষণাবেক্ষণ করতে বাধ্য এবং ইউনিয়ন ও কর্মীদের সঙ্গে পারস্পরিক সম্মতিতে বেতন ও ছুটির ব্যাবস্থা ঠিক করবেন বিশেষতঃ স্বল্প মজুরির ওয়ার্ক পারমিট ধারকগণের জন্য যাদের বিশেষ সাহায্যের প্রয়োজন।
  • বেতন পর্বের সাত দিনের মধ্যেই প্রতি মাসে আপনি অতি অবশ্যই নিয়মিত আপনার বেতন পাবেন।
  • যদি আপনি প্রতি সপ্তাহে চুয়াল্লিশ ঘণ্টার বেশি কাজ করেন, তবে আপনার নিয়োগকর্তা আপনাকে অতিরিক্ত সময়বাবদ আপনার মূল বেতনের দেড় গুণ বেশি দিতে বাধ্য থাকবেন।
  • আপনার নিয়োগকর্তার দেওয়া বাসস্থান পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন, নিরাপদ ও কম জনবহুল হতে হবে। ব্যক্তিগত/নিজস্ব বাড়ীতে সর্বাধিক আটজন বাসিন্দা থাকতে পারে

Employers