হেলথ সার্ভ আপডেট

আপডেট: সার্কিট ব্রেকার শেষ হওয়ার পরে কী ঘটবে/হবে? (১ জুন)

1 জুন সার্কিট ব্রেকার শেষ হওয়ার পরে, আপনার নিয়োগকর্তা এবং সরকারের থেকে আরও তথ্য না পাওয়া পর্যন্ত আপনাকে আপনার ডর্মে থাকতে হবে। যদি আপনার সোয়াব পরীক্ষার ফল নেতিবাচক হয়, বা ডাক্তার বলেন যে আপনি সুস্থ আছেন, তবে আপনাকে ব্লকস ফর রিকভার্ড ওয়ার্কার্স (বিআরডাব্লু) বা ক্লিয়ার্ড ডর্মস নামে একটি অন্য স্থানে নিয়ে যাওয়া হবে।

 

আপনি যদি বিআরডাব্লুতে থাকেন এবং আপনার নিয়োগকর্তা যদি আপনাকে জানিয়ে থাকেন যে আপনি আবার কাজ শুরু করতে পারেন তবে আপনি আপনার ডর্মিটরি থেকে বেরতে পারবেন কেবলমাত্র আপনার কাজের জন্য এবং কাজের পরে আপনাকে অতি অবশ্যই আপনার বিআরডাব্লুতে ফিরে যেতে হবে। আপনার নিয়োগকর্তা আপনাকে আপনার  কর্মক্ষেত্রে যাতায়াতের জন্য ব্যক্তিগত পরিবহন (যেমন ভ্যান, লরি বা বাস) সরবরাহ করতে বাধ্য।

 

আপনি  বিআরডাব্লু/ক্লিয়ারাড ডর্মে থাকার সময় নিম্নলিখিত তিনটি পর্যায় প্রযোজ্য থাকবে:

 

প্রথম পর্যায়: নিরাপদ উদ্বোধন

কর্মীরা/ শ্রমিকরা কেবলমাত্র কোম্পানির পরিবহণের মাধ্যমে কাজের জন্য ডর্মস ছেড়ে যেতে পারে; বিশ্রামের দিন ডর্মে থাকা বাধ্যতামূলক 

কর্মী/শ্রমিকদের খাদ্য ও নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর অবিচ্ছিন্ন সরবরাহ নিশ্চিত করতে নিয়োগকর্তারা বাধ্য

 

দ্বিতীয় পর্যায়: নিরাপদ স্থানান্তর

কিছু শ্রমিক বিশ্রামের দিনগুলিতে ডর্মের বাইরে কাজ চালাতে পারবেন, তবে একসঙ্গে হঠাৎ সবাই নয়

আপনি 2 ঘন্টার জন্য ডর্মস ছেড়ে যেতে পারেন বা ডর্ম পরিবহনের মাধ্যমে বিনোদন কেন্দ্রটিতে যেতে পারেন

 

তৃতীয় ধাপ: নিরাপদ জাতি/গোষ্ঠী

নির্দিষ্ট বিশ্রামের দিনগুলি অব্যাহত থাকবে, তবে কর্মী/শ্রমিকরা বেশিক্ষণের জন্য ফর্মের বাইরে থাকতে পারে বিশ্রামের দিনগুলিতে এবং আরও বিভিন্ন স্থানেও যেতে পারে

 

যাদের পরীক্ষা করা হয়নি এবং ডর্মিটরির অভ্যন্তরে রয়েছেন, তারা  MOM এর নতুন টেলিহেল্থ পরিষেবা বা ডরমিটরির মেডিকেল পোস্টের মাধ্যমে খাবার এবং চিকিৎসার সহায়তা পাবেন।

এমওএম এর প্রেস বিজ্ঞপ্তির সংক্ষিপ্তসার (মে 2020)

1 জুন সার্কিট ব্রেকার শেষ হওয়ার পরে, শ্রমিক/কর্মীদের কী করণীয়

ডর্মিটরির মধ্যে

  • আন্ত-সংস্থা টাস্ক ফোর্স (আইটিএফ) আরও কর্মীদের পরীক্ষা করছে এবং সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে পরীক্ষার ফল নেতিবাচক হলে তা নিশ্চিত করবে যে আপনি ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে নিরাপদ/মুক্ত এবং আবারও কাজ শুরু করতে পারবেন।
  • শেষবার, 10ই মে আইটিএফ ঘোষণা করেছিল যে ডর্মিটরিতে কর্মী/শ্রমিকদের যত্ন নেওয়ার জন্য তিনটি ভিন্ন ধাপ রয়েছে
    •  প্রথম পর্যায়: নিরাপদ দূরত্ব
      • অত্যাবশ্যকীয় কাজের কর্মী/ শ্রমিকদের অন্যত্র এমন জায়গায় স্থানান্তরিত করা হবে যেখানে কম ভিড় এবং সেই সকল কর্মী/ শ্রমিকদের স্বাস্থ্য পরীক্ষাও করা হবে যাতে তারা নিরাপদে কাজ শুরু করতে পারেন।
    • দ্বিতীয় পর্যায়: চিকিৎসা সহায়তা
      • সাইটে মেডিকেল পোস্ট এবং মোবাইল মেডিকেল টিম
      • ভিডিও ব্যবহার করে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ
      • জরুরী অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা
    • তৃতীয় পর্যায়: নিরাময় পর্ব
      • ধীরে ধীরে রোগ নিরাময় হওয়া কর্মী/শ্রমিকরা কাজে যোগদান করতে পারবেন 
      • নতুন পদ্ধতির মাধ্যমে কর্মীদের স্বাস্থ্য নিরীক্ষণ/পর্যবক্ষেণ

নিরাপদ কাজ/কাজের নিরাপত্তা

  • প্রতিটি সেক্টরে সেটি কোভিড সংক্রমণ থেকে নিরাপদ কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য সুনির্দিষ্ট ক্রিয়াকলাপ/কার্যক্রম আছে।
  • নির্মাণ খাতের জন্য, বিল্ডিং অ্যান্ড কনস্ট্রাকশন অথরিটির (বিসিএ) কাছে নির্মাণ কাজ শুরু করার জন্য একটি কোভিড-সেফ পুনঃসূচনা মাপদণ্ড রয়েছে।

নিরাপদভাবে বসবাস 

  • আইটিএফ জানিয়েছে যে তাদের ডর্মে রোগ নিরাময় হওয়া কর্মীদের জন্য (বি আর ডাব্লু) কিছু ব্লক থাকবে। এই ব্লকগুলি সেই সকল কর্মী/শ্রমিকদের জন্য যারা সম্পূর্ণভাবে  কোভিড মুক্ত এবং তারা আবার ডর্মিটরিতে ফিরে যেতে পারবেন।

প্রবেশ ও প্রস্থানের কঠোর নিয়ন্ত্রণ

  • বিআরডাব্লু * ডর্মিটরির অন্যান্য ব্লকের থেকে আলাদা। বিআরডাব্লুতে প্রস্থান এবং প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ করা হবে।
  • বিআরডাব্লুগুলিতে কর্মীরা কেবল কাজের জন্য বাইরে যেতে পারেন এবং কাজ শেষে অবিলম্বে ফিরে আসতে বাধ্য থাকবেন।
  • পরিস্থিতি আরও উন্নত হলে, সরকার বিআরডাব্লু থেকে কর্মীদের কাজ ছাড়াও অন্য প্রয়োজনে/কারণে বাইরে যাওয়ার অনুমতি দিতে পারেন। তবে প্রত্যেককে অবশ্যই অন্যান্য সিঙ্গাপুরিয়ানদের মতো নিরাপদ/সামাজিক দূরত্বের নিয়ম অনুসরণ করতে হবে। বাইরে গিয়ে দলে দলে মিলিত হতে পারবেন না। কিছু জনপ্রিয় অঞ্চলে কেবলমাত্র কম সংখ্যক লোককে যেতে দেওয়া হবে। সরকার শীঘ্রই এ সকল ঘোষণা করবে।

*বিআরডাব্লু = এমন কর্মীদের জন্য ব্লক, যাদের আর কোভিড নেই এবং ডর্মিটরিতে ফিরে যেতে পারেন

কর্মী/শ্রমিকদের একত্রে মেলামেশা সীমাবদ্ধ করুন

  • ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে ডর্ম অপারেটরদের নিশ্চিত করতে হবে যে শ্রমিকরা একে অপরের সাথে যেন না মেশে
  • ডর্ম অপারেটরের অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যাতে সসর্বজনীন জায়গা এবং প্রবেশ পথে বাধা/অন্তরায় এবং নির্দিষ্ট পথ থাকে। প্রতিটি ব্লকে শ্রমিকদের একই স্তরে এবং ঘরে থাকতে হবে। অন্য স্তরে যেতে পারবে না। শেয়ার করা টয়লেটের অভ্যন্তরে, কয়েকটি ঝরনা, ওয়াশ বেসিন এবং টয়লেট কেবলমাত্র একই কক্ষের শ্রমিকদের ব্যবহারের জন্য চিহ্নিত করতে হবে। যখন শ্রমিকরা নিজেদের রান্না শুরু করতে পারবেন, তখন তারা কেবলমাত্র নিজের ঘরের লোকের জন্য সর্বজনীন রান্নাঘরে নির্দিষ্ট চুলা/উনুন ব্যবহার করতে পারবেন।
  • কাজের জন্য ডর্ম ছেড়ে বাইরে যাওয়ার সময় এবং ফিরে আসার সময়, অপেক্ষা করার জন্য বিশেষ অঞ্চল থাকবে। গাড়িতে ওঠানামার সময়গুলিও বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে।
  • ডর্মগুলিতে মিনিমার্ট, ক্যান্টিন এবং দোকানগুলিতে প্রত্যক্ষ/শারীরিক সংযোগের মাধ্যমে বিক্রয় হবে না। কল, এসএমএস বা অনলাইনে মাধ্যমে অর্ডার ব্যবহার করতে হবে। শ্রমিকদের রান্নাঘর বা বাইরের বিনোদন ক্ষেত্রের মতো সর্বজনীন অঞ্চলগুলি ব্যবহার করার জন্য নির্দিষ্ট সময় থাকবে।

সর্বদা সচেতন থাকা 

  • ডর্মিটরির বাসিন্দাদের অবিরত পরীক্ষা চলতে থাকবে। প্রত‍্যেক দিন নিয়মিত ভাবে তাপমাত্রা, অক্সিজেন ( oxygen) লেভেল, এবং হৃদ কম্পন (হার্ট বিট্) মাপা প্রয়োজন। শারীরিক অসুস্থতা বোধ হলে, সরকারে জানিয়েছেন যে আপনারা চিকিৎসা ডর্মের ভিতর থেকেই অথবা ডর্মের নিকট অবস্থিত কোনো চিকিৎসা কেন্দ্র বা tele-kiosk থেকে পেতে পারেন। মেডিকেল চিকিৎসা যে কোনো প্রকার রোগের জন্য পেতে পারেন, কেবলমাত্র কোভিড-এ( Covid-19) সীমাবদ্ধ নয়।
  • কোনো কর্মী যদি কোভিড (covid)- দ্বারা আক্রান্ত হন,তাহলে তাকে এবং যেই কর্মীদের সংস্পর্শে তিনি এসেছেন, সকলকে এক জায়গাতেই আইসোলেট (isolate) করে রাখা হবে অথবা community isolation facility-তে রাখা  হবে। প্র‍ত‍ি ব‍্যক্তিকেই পরীক্ষা করা যারি থাকবে যাতে ভাইরাস (virus) সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে  রাখা যায়।

কন্টাক্ট ট্রেসিং

  • 1লা জুন থেকে  ডর্মে থাকা প্রতিটি ব‍্যক্তিকেই “ট্রেস টুগেদার ” অ‍্যাপ্ ডাউনলোড করতে হবে। 
  • অ‍্যাপ্ ডাউনলোড করার দরুন আপনারা সরকারের সহযোগিতা করছেন। কোনো ব‍্যক্তি কভিড দ্বারা আক্রান্ত হলে, সরকার সহজেই তাকে সনাক্ত করতে পারবে।
  • অ‍্যাপ্-টি নিম্ন লিখিত Website থেকে  ডাউনলোড করা যাবে (Android & iOS): https://www.tracetogether.gov.sg

ডর্মিটরির বাহিরে

ঘরে থাকার বিজ্ঞপ্তি 

  • কর্মীরা যারা ওয়ার্ক পারমিট এবং এস্-পাস্-র দ্বারা নির্মাণকাজে নিযুক্ত, তাদের জন‍্য ঘরে থাকার বিজ্ঞপ্তি ১৮-ই মে সমাপ্ত হয়েছে। এই কর্মীদের প্রতি যারা নির্ভরশীল তাদের জন্যেও এটি প্রযোজ‍্য। বর্তমানে সার্কিট ব্রেকারের নিয়মকানুন বহাল থাকবে আর সকলকে ঘরে থাকতে হবে। শুধুমাত্র প্রয়োজনীয় কাজ আর জরুরি চিকিৎসা-র জন‍্য বাইরে যাওয়ার অনুমতি থাকবে।
  • যারা এই সার্কিট ব্রেকারের নিয়ম লঙ্ঘন করবে, তাদের ওয়ার্ক পারমিট, এস্-পাস্ অথবা ডিপেন্ডেট পাস্ বাতিল করা হবে।

পরিবহন

  • পাবলিক ট্রান্সপোর্টে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে এবং অন্য লোকের সাথে বা ফোনে কথা বলতে পারা যাবে না। স্বাস্থ্যবিধি বজায় রাখতে হবে।

কন্টাক্ট ট্রেসিং

  • ১ লা জুন থেকে, নির্মাণ, মেরিন এবং প্রসেস সেক্টরগুলিতে সমস্ত ওয়ার্ক পারমিট এবং এস-পাসধারীদেরকে অতি অবশ্যই  ট্রেসটুগেদার মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে হবে

আমাকে ডাক্তার দেখাতে হবে। খুব জরুরি

  • এমওএম “FWMOMCare” নামে একটি নতুন মোবাইল অ্যাপ তৈরি করেছে।
  • সমস্ত কর্মীদের (ওয়ার্ক পারমিট এবং এস-পাসধারী) এই অ্যাপটি ডাউনলোড করে থাতে নিবন্ধন/রেজিস্ট্রেশনের জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।
  • নীচে অ্যাপটির ব্যবহার উল্লেখ করা অছে:
    • একদিনে দুইবার শরীরের তাপমাত্রা রেকর্ড/নথিবদ্ধ করা যাবে
    • সর্দি-কাশি, গলা ব্যথা বা শ্বাসকষ্ট হলে অ্যাপে লিখুন। ডাক্তার ভিডিও কলের মাধ্যমে 30 মিনিটের মধ্যে আপনার সাথে যোগাযোগ করবেন।
  • আপনি এইভাবে অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারেন: অ্যান্ড্রয়েড (www.mom.gov.sg/fwmomcare-android),  আইওএস (www.mom.gov.sg/fwmomcare-ios)

আমার মনিব/নিয়োগকর্তা আমাকে কাজে যোগদান করার জন্য কিভাবে জানাবেন?

বিসিএ র সাম্প্রতিক তথ্য

  • . ধীরে ধীরে , নির্মাণ কাজ , পর্যায় ক্রমে আবার শুরু হতে পারে, যাতে কোভিড ১৯ আবার সংক্রামিত না হতে পারে ( যেমন এম আর টি / ডিপ টানেল সিউয়ারেজ সিস্টেম টানেলিং, ডিপ এক্সকাভেশান ওয়ার্ক, ব্রিজ কন্সট্রাকশান এবং প্রিকাস্ট মেনুফাকচারিং প্লান্ট এর কাজ)
  • . সকল অনুমদিত কাজের জায়গায়ে এই নিরাপত্তা পরিমাপকগুলি থাকা উচিৎ।
  • . কোভিড মুক্ত কর্মী
    • .সকল কর্মীদের ট্রেস টুগেদার অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে ১লা জুন বা যখন কোম্পানী কাজ শুরু করার আরজী দাখিল করবে। ( যেটা প্রথম হবে) . 
    • . নিয়োগকর্তাকে নিয়মিত আপনার স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখতে হবে এবং ছুটির দিনে সামাজিক মেলামেশা  নিয়ন্ত্রন করতে হবে। 
    • আপনার নিয়মিত স্বাব পরীক্ষা করা হবে ( অন সাইট এবং অফ সাইট দুই ক্ষেত্রেই)।
      • কাজ শুরু করবার আগে : স্বাব পরীক্ষা =নেগেটিভ
      • কাজ শুরু করবার পরে : স্বাব পরীক্ষা= প্রতি দুই সপ্তাহে একবার
      • সার্কিট ব্রেকারের মধ্যে কাজ শুরু করলে : কাজ করা চালু রাখা যাবে, কিন্তু ১৫ ই জুনের মধ্যে স্বাব পরীক্ষা করানো বাধ্যতামূলক।
  • . কোভিড সুরক্ষিত ওয়ার্ক সাইট
    • . সেফ এন্ট্রি( এন. আর. আই.সি), যাতে প্রবেশ ও প্রস্থান নথিভুক্ত করা যায়।
    • . সুরক্ষা পরিমাপ , যাতে কোভিড সংক্রমন নিয়ন্ত্রন করা যায়, যেমন ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় কাজ করবার জন্য বিভিন্ন দলে ভাগ হয়ে যাওয়া, ভিন্ন ভিন্ন বিরতির সময় ইত্যাদি।
  • কোভিড সুরক্ষিত কর্মী ( বাসস্থান ও যাতায়াত)
    • . বিভিন্ন প্রজেক্ট অনুযায়ী কর্মীদের বাসস্থানে ভাগ করা
    • . থাকার ও কাজের জায়গার মাঝে যাতায়াতের যানবাহনের ব্যবস্থা( যদি না অন সাইটে থাকেন)।মনে  রাখবেন মাস্ক পরাবাধ্যতামূলক এবং পরস্পরের সাথে কথাবলা নিষেধ।
  • সকল কর্মীদেরকোভিড সেফ ট্রেনিং ফর ওয়ার্কারনেওয়া দরকার ।

এম. ও.এম/বি.সি.এ আপডেট পুরোটা পড়তে:

Advisory on Safe Management Measures for workers on employer-provided transportation (29 May 2020)

New Resources to Provide Better Care for Migrant Workers (27 May 2020)

ADVISORY FOR A SAFE AND CONTROLLED RESTART OF THE CONSTRUCTION SECTOR FROM 2 JUNE 2020 (25 May 2020)

Notification to employers on requirements for construction foreign employees after the Stay-Home Notice (SHN) period (15 May 2020)

Safe Working and Safe Living (15 May 2020)

Leveraging Medical Technologies to Monitor Health of Foreign Workers More Effectively (10 May 2020)

সিঙ্গাপুর আপডেট

প্রধানমন্ত্রী লি হিসিয়েন লুং: আমরা আমাদের বিদেশী কর্মীদের যত্ন নিচ্ছি

এমওএম জোসেফাইন টিও থেকে আপডেট